৯/১১- এর স্মৃতিচারণা!

0
162
[author ] খালিদ মুন্তাসির,  অনুবাদক, লেখক, কলামিস্ট ও সাংবাদিক। [/author]

আজ ১১ই সেপ্টেম্বর, ২০১৮। ২০০১ সালে আজকের এই দিনে আমেরিকার দম্ভকে মুচড়ে দিয়েছিলেন আল্লাহর কিছু বীর সিংহ। চুরমার করে দিয়েছিলেন আমেরিকার অহংকার ‘টুইন টাওয়ার’কে। বিশ্ববাসীর কাছে এই বিষয়টি সুস্পষ্ট যে, ঐ হামলার পরই বিশ্বরাজনৈতিক প্রেক্ষাপটের পরিবর্তন হয়েছিল। বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালিয়ে আসা আমেরিকার অন্তরে ভয় ঢুকে গিয়েছিল। ইসলামবিদ্বেষী আমেরিকার অর্থনৈতিক ভাণ্ডার মারাত্মকভাবে বিপর্যস্ত হয়েছিল। সেই হামলার ফলে, মুসলিমদের মনে আশার আলো জ্বলে উঠে, নির্জীব প্রাণগুলো সজিবতা লাভ করে। এটি ছিল এমন এক হামলা, যার দ্বারা আমেরিকার ধ্বংস নিকটবর্তী হয়েছে, বিইযনিল্লাহ । আজ এর বাস্তবতা আমরা প্রত্যক্ষ করছি। আমেরিকা আজ বিপর্যস্ত, দুর্বল, পলায়নপর!

৯/১১ হামলার মাধ্যমেই আমেরিকার কেন্দ্রীভূত শক্তিকে সারাবিশ্বে ছড়াতে বাধ্য করা হয়েছে, যেন তার শক্তিকে খর্ব করে দিতে সুবিধা হয়। মহাসাগরের ওপাড়ে অবস্থানকারী ইসলামের চরম শত্রুকে আঘাত করা বড়ই কঠিন ছিল। পাশাপাশি, ওপাড়ে বসে ইসলাম ধ্বংসের ঘৃণ্য চক্রান্তকারী আমেরিকার সমুচিত জবাব দেওয়াও অতি জরুরি ছিল। আর, আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের ইচ্ছায়, ইসলামের কয়েকজন বীর মুজাহিদ শত্রুদেশের অভ্যন্তরে ঢুকে আমেরিকার টুইন টাওয়ারে হামলা করার মাধ্যমে সেই জরুরত পূরণ করলেন মুসলিম উম্মাহর পক্ষ হয়ে, আলহামদুলিল্লাহ। নির্ভীক সেই ক্ষুদ্র মুজাহিদ বাহিনীকে আল্লাহ কবুল করে নিন। তাঁদের শাহাদাতকে কবুল করে নিন। আমীন ইয়া রাব্বুল আলামীন।

আর আজ সেই দিনটি আমাদের মাঝে উপস্থিত। সেই দিনে সংঘটিত বরকতময় হামলা থেকে আমরা শিক্ষা নিব। এজন্যই, ২০০১ সালের বরকতময় ‘৯/১১’ হামলার কথা আপনাদেরকে স্মরণ করিয়ে দেওয়ার ইচ্ছা পোষণ করেছি। যেন বরকতময় ঐ হামলার কথা স্মরণ করে নতুন উদ্দমে এই উম্মাহর শত্রুর ‍বিরুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়তে পারি সকলে। আল্লাহ আমাদের কবুল করে নিন, আমীন।

 

আল্লাহ রাব্বুল আলামীন বলেন:-

وَمَكَرُوا وَمَكَرَ اللَّهُ ۖ وَاللَّهُ خَيْرُ الْمَاكِرِينَ [٣:٥٤]

অনুবাদ:  এবং কাফেররাও চক্রান্ত করেছে আর আল্লাহও কৌশল অবলম্বন করেছেন। বস্তুতঃ আল্লাহ হচ্ছেন সর্বোত্তম কুশলী। [সূরা আল-ইমরান, আয়াত:৫৪]

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here