Templates by BIGtheme NET
BREAKING NEWS
Home / সংবাদ / আফ্রিকা / একসঙ্গে একাধিক স্বামী রাখার অপরাধে এক বিবাহিত নারীর উপর যিনার হদ কায়েম

একসঙ্গে একাধিক স্বামী রাখার অপরাধে এক বিবাহিত নারীর উপর যিনার হদ কায়েম

শুকরি আবদুল্লাহি ওয়ারসেম নামে এক সোমালিয়ান মহিলা। ওই নারীর বিরুদ্ধে আগের স্বামীদের সঙ্গে (তালাক) বিচ্ছেদ ছাড়াই ১১পুরুষের সাথে যিনা করার প্রমাণ পাওয়া গেছে। আর ইসলামী শরিয়াতে প্রথম স্বামীর বিবাহধীন থাকা অবস্থায় অন্যকোন পুরুষের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেও তা বিশুদ্ধ হবে না বরং যতবার স্বামী-স্ত্রী সুলভ আচরণ করবে ততবারই যিনার অপরাধ হবে।
মোটকথা, পতিতালয়ের কোন নারী পতিতালয়ে থাকার কারণে যে অপরাধ হয় প্রথম স্বামীর বিবাহধীন থাকা অবস্থায় অন্যান্য স্বামী নামের পরপুরুষদের সাথে মেলামেশা করলেও একই অপরাধ হয়। উভয় নারীর মাঝে তফাৎ নেই।
তাই শরয়ী আদালতের রায়ের পর হারাকাতুশ শাবাব যোদ্ধারা দক্ষিণ সাবলাল শহর শুকরিকে কুরআনে বর্ণিত বিবাহিত নারীর যিনার শাস্তি ছঙ্গেছার” তথা গলা পর্যন্ত মাটিতে পুঁতে, পাথর ছুড়ে তার মৃত্যু কার্যকর করেছেন।

“শুকরি আবদুল্লাহি ও তার সাথে বর্তমানে মেলামেশাকারী নয় ব্যক্তি, যার মধ্যে তার বর্তমান স্বামীও আছেন, আদালতে হাজির করা হয়েছিল। প্রত্যেকেই শুকরিকে তাদের স্ত্রী হিসেবে চিহ্নিত করেছে।
অথচ, ইসলামি শরিয়া আইন পুরুষদের একইসময়ে চার স্ত্রী রাখার অনুমতি দিলেও, একইসময়ে নারীর একাধিক স্বামীর অনুমতি দেয় না। এটাই কুরআনের বিধান। আর এ বিধানের মাঝেই নারীজাতির কল্যাণ নিহিত রয়েছে। কিন্তু, ইসলামী বিধান কার্যকর থাকা কুফফার জাতির জন্য কোনভাবেই সহ্য হয়না। তাই, তারা ইসলামী আইনের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লিপ্ত থাকে। তেমনি,  ১১ পুরুষের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়ে যিনার অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হওয়া নারীকে হারাকাতুশ শাবাব যোদ্ধাদের ইসলামী শরীয়াহ অনুযায়ী বিচার করার বিষয়টি এ দেশের কিছু মিডিয়াও সহ্য করতে পারেনি। তাই তারা, ইসলামী শরীয়ার বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লিপ্ত হচ্ছে। এসকল মিথ্যাবাদী কুফুরী মিডিয়া থেকে সকলকেই সাবধান থাকার জন্য বলা হচ্ছে।

About abu sulaiman

২ comments

  1. আল্লাহ আকবার, আল্লাহ ভাইদের শক্তি আপনি বাড়িয়ে দিন,আমিন।
    প্রিয় ভাইয়েরা আপনাও কমেন্ট করুন।

  2. লিল্লাহি তাকবীর, আল্লাহ তায়ালা সারা বিশ্বে মুজাহিদীনের মাধ্যমে শরীয়াহ ভিত্ত্বিক সকল হদ্ ক্বায়েম করার তাওফীক্ব দান করুন ! আমীন ইয়া রাব্বাল আলামীন !!!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*