Templates by BIGtheme NET
BREAKING NEWS
Home / সংবাদ / উপমহাদেশ / অপরাধী হওয়ার পরও হিন্দুত্ববাদী নেতাদের কে ভারতের আদালত মুক্ত করে দিচ্ছে

অপরাধী হওয়ার পরও হিন্দুত্ববাদী নেতাদের কে ভারতের আদালত মুক্ত করে দিচ্ছে

 

মুসলিম হত্যা যেন উগ্র হিন্দুদের কাছে কোন অপরাধই না এমনটাই মনে হচ্ছে ভারতের বিভিন্ন আদালতের রায় দেখে। ভারতের গুজরাটে ২০০২ সালের দাঙ্গার একটি হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত বিজেপির গুরুত্বপূর্ণ নেত্রী ও প্রাক্তন মন্ত্রী মায়া কোদনানীকে খালাস করে দিয়েছে আদালত। আহমেদাবাদের নারোদা পাটিয়া এলাকার ওই দাঙ্গায় অগনিত মুসলমান প্রাণ হারিয়েছিলেন, অনেক মুসলমানের বাড়িঘর ভাংচুর লুটপাট করা হয়েছিল, অনেকে আবার ভিটাবাড়ি থেকে উচ্ছেদ হয়ে বাস্তহারা হয়েছেন। এসমস্ত কর্মকাণ্ডে বিজেপি নেতা-নেত্রীদের প্রকাশ্য হাত ছিল। এতকিছু সত্ত্বেও, আদালত বলছে, বিজেপি নেত্রী মায়াকোদনানীর বিরুদ্ধে যথেষ্ট তথ্য প্রমাণ পাওয়া যায়নি। একই সাথে আদালত বাবু বজরঙ্গী নামে আরেক হিন্দুত্ববাদী নেতারও একই ধরনের রায় দিয়েছে। ভাবখানা যেন এমন মুসলমান মেরেছে, তাদের বাড়িঘর ভাংচুর লুটপাট করা হয়েছিল তাতে কি হয়েছে? এটাতো কোন অপরাধই না।
শুধু এই মামলা নয়, সম্প্রতি ভারতের বিভিন্ন আদালতের একই চিত্র ফুটে উঠছে, যেখান থেকে অভিযোগ-মুক্ত হয়েছেন হিন্দুত্ববাদী নেতারা।
এর আগে, হায়দ্রাবাদের মক্কা মসজিদে একটি বিস্ফোরণের মামলা থেকেও খালাস পেয়েছেন কট্টর হিন্দুত্ববাদী নেতারা।
মক্কা মসজিদ বিস্ফোরণের ঘটনায় সন্ত্রাসী হিন্দুত্ববাদীদের অপরাধকে লুকানোর জন্য ও আসল ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে প্রথমে দিকে উল্টো আরো বহু সংখ্যক মুসলমান যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। হায় কত বড় চক্রান্ত!!!! হিন্দুত্ববাদীরা এখনো মুসলমানদের হত্যা করে চলছে, আসলে কোন আদালত তাদের বিচার করবে না তাদেরকে শাস্তি দেওয়ার দায়িত্ব আল্লাহ তায়ালা আমাদের উপরই ন্যাস্ত করেছেন। তাই আমাদেরকেই তাদের থেকে মুসলিম হত্যার প্রতিশোধ নিতে হবে। আল্লাহ তায়ালা আমাদের তৌফিক দান করুক। আমীন!!!

About abu sulaiman

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*